রাজাঝির দীঘি | ফেনী

0
1385

সংক্ষিপ্ত বিবরনঃ

( Rajajhir Dighi )”ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম, শহীদুল্লাহ কায়সার ও জহির রায়হান সহ আরো গুণীজনদের জন্ম এই ফেনীর মাটিতে। এই ফেনী জেলা অনেক ইতিহাস ও ঐতিহ্যে ভরপুর। এমন নানা ঐতিহ্যের মাঝে রাজাঝীর দিঘী অন্যতম। ফেনীর ঐতিহ্যবাহী রাজাঝীর দিঘী শহরের জিরো পয়েন্টে অবস্থিত। কথিত আছে যে প্রায় ৫/৭ শত বছর পূর্বে ত্রিপুরা মহারাজের প্রভাবশালী এক রাজার কন্যার অন্ধত্ব দুর করার মানসে এ দীঘি খনন করা হয়। কন্যা-কে স্থানীয় ভাষায় ঝি বলা হয় । ১৮৭৫ সালে ফেনী মহকুমা প্রতিষ্ঠিত হলে এই রাজাঝির দীঘির পাড়ে তার সদর দপ্তর গড়ে তোলা হয়। এই রাজাঝীর দীঘির পাড়ে বর্তমানে ফেনী সদর থানা, ফেনী কোর্ট মসজিদ,অফিসার্স ক্লাব এবং জেলা পরিষদ পরিচালিত শিশু পার্ক সহ ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন গড়ে উঠেছে । মোট ১০.৩২ একর আয়তন বিশিষ্ট এ দীঘিটি ফেনীর ঐতিহাসিক ও দর্শনীয় স্থানের একটি । প্রতিদিন অনেক দর্শনার্থীর সমাগম ঘটে এই দিঘীর পাড়ে।”

কিভাবে যাবেনঃ

দেশের যেকোনো স্থান থেকে ফেনীর বাসে চড়ে মহিপাল বাস স্ট্যান্ডে নামতে পারেন। সেখান থেকে রিক্সা অথবা সিএনজি যোগে পৌঁছে পারবেন রাজাঝির দিঘী। এছাড়া ট্রেনে গেলে রেলওয়ে স্টেশন থেকে রিকশাযোগেও পৌঁছাতে পারেন।

কোথায় থাকবেনঃ

থাকার জন্য ফেনীতে রয়েছে সরকারী রেস্টহাউস ও বাংলো। এগুলোতে থাকার জন্য আগে থেকে যোগাযোগ করতে হবে। এছাড়া ফেণীতে বেশ কয়েকটি হোটেল রয়েছে এগুলোতোও থাকতে পারবেন।

১। ফেনী সার্কিট হাউস: ফেণী শহরের অদূরে বিজয়সিংহ দিঘীর পাড়ে অবস্থিত।

২। এলজিইডি রেস্ট হাউস : ফেণী শহরে ফেনী কুমিল্লা রোডের পাশে ।

৩। পানি উন্নয়ন বোর্ডের রেস্ট হাউস মহিপাল থেকে ফেণী শহরের দিকে যাওয়ার পথে শহীদ শহীদুল্যাহ কায়সার সড়কের পাশে।

৪। পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির রেস্ট হাউস: মহিপাল মোড় হতে প্রায় ১.৫ কি:মি: দক্ষিণে ঢাকা চট্টগ্রাম হাইওয়ের পাশে অবস্থিত।

৫। ফেণী শহরে বেশকিছু হোটেল রয়েছে। আরো ভালো পরিবেশে থাকতে চাইলে। ফেণীর নিকটবর্তী কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রামে অবস্থিত ভিটা ওয়ার্ল্ডে থাকতে পারবেন। ফোন: ০১৭৩৩ ৩৩১ ৯৫৭।

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার ভ্রমণ পিয়াশি বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here