এসকেএস ইন | গাইবান্ধা

0
978
sks inn

সংক্ষিপ্ত বিবরনঃ

ব্যতিক্রমধর্মী একটি বিনোদন কেন্দ্র। চারদিকে ফসলের মাঠ আর সবুজের কোলঘেষে গাইবান্ধায় গড়ে উঠেছে `এসকেএস ইন’( sks inn ) নামের এই বিনোদন কেন্দ্রটি। প্রায় পাঁচ একর ভূখন্ড এলাকা জুড়ে বিস্ততৃ `এসকেএস ইন’-এর পুরো অংশজুড়ে রয়েছে কৃত্রিম ফোয়ারা, রকমারী বৃরাজি, বাঁশঝাড়, কৃত্রিম সুরধ্বনি ও নয়নাভিরাম পুকুরসহ বিভিন্ন স্থাপনা।
গাইবান্ধা জেলা শহরের সন্নিকটে গাইবান্ধা-নাকাইহাট সড়কের রাধাকৃঞ্চপুর নামক স্থানে এটি গড়ে উঠেছে গাইবান্ধায় বিনোদন কেন্দ্র বলতে পৌর পার্ক ছাড়া আর কোন প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেনি। গড়ে উঠেনি রাত্রিযাপনের জন্য উন্নতমানের কোন আবাসিক হোটেল। ভ্রমণপিপাসু ও পর্যটকদের কথা চিন্তা করেই গাইবান্ধার বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠন এসকেএস ফাউন্ডেশন “এসকেএস ইন্” নামক একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন।


দেশী-বিদেশী উন্নয়ন/দাতা সংস্থা, পর্যটক, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, মাল্টি-ন্যাশনাল প্রতিষ্ঠানসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের জন্য অত্যাধুনিক আবাসন সেবা এবং খাবারের সু-ব্যবস্থা রয়েছে প্রাকৃতিক পরিবেশমন্ডিত নান্দনিক এ ক্যাম্পাসে। প্রশিক্ষণ, কনফারেন্স, সেমিনার, কর্মশালা আয়োজনের জন্য রয়েছে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ৫টি হলরুম। ২০০ আসন বিশিষ্ট ১টি হলরুম ছাড়াও ৩৫টি আসনের দু’টি, ৫০টি আসনের ১টি ও ৮০ আসন বিশিষ্ট হলরুম রয়েছে ১টি। সকল প্রকার বাংলা, চাইনিজ ও ফার্স্টফুড খাবারের জন্য রয়েছে উন্মুক্ত জলধারা রেস্টুরেন্ট। সর্বনিম্ম ৭০ থেকে সর্বোচ্চ সাড়ে ৩০০ টাকার মধ্যে খাবার পাওয়া যাবে এখানে। রয়েছে ২টি ডাইনিং স্পেস। যেখানে একসাথে ৭০ ও ১০০ জন স্বাচ্ছন্দে খেতে পারবেন। বাহিরের যে কেউ অর্ডার দিয়ে খাবার পেতে পারেন এখান থেকে।
রয়েছে তিনটি ভবন। যার নাম দেয়া হয়েছে বালাসী, ভবাণীগঞ্জ ও রাধাকৃঞ্চপুর। এই তিন ভবনে আবাসনের জন্য রয়েছে ৬১টি এসি রুম (সিঙ্গেল/ডাবল) এবং ১১টি নন-এসি রুম (সিঙ্গেল/ডাবল)। প্রতিটি রুমে রয়েছে সৌখিন ও রুচিসম্মত ফার্ণিচার, এলইডি টিভি, মিনি ফ্রিজ, রুম হিটার, ঠান্ডা ও গরম পানিসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা।


এছাড়াও রয়েছে অত্যাধুনিক ডিজাইনের নীলকুঞ্জ, কামনী, ছায়ানীড়সহ ৫টি কটেজ। যার মধ্যে ২টি ওয়াটার কটেজ এবং ১টি রয়েল ডিলাক্স কটেজ। যেখানে অন্যান্য রুমের সুবিধাদিসহ বাড়তি সুবিধা হিসেবে রয়েছে সু-পরিসর বাথটাব। এসব কটজে রাত্রীযাপন করতে ব্যয় হবে ৩ হাজার ২০০ টাকা থেকে শুরু করে ৭ হাজার টাকা পর্যন্ত। রয়েছে সুইমিং পুল। জিম কর্ণার। চাইল্ড কর্ণার। ফ্রী ওয়াই-ফাই। গেম জোন। উন্মুক্ত মঞ্চ।

কিভাবে যাবেনঃ

গাইবান্ধা থেকে রিকসা, অটোরিকসা খুব সহজেই যেতে পরেন।

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার ভ্রমণ পিয়াশি বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here