অষ্টগ্রাম হাওর | কিশোরগঞ্জ

0
238
Ostogram Haor

সংক্ষিপ্ত বিবরনঃ

হাওর( Ostogram Haor ), নদী আর মিঠাপানির জলাভূমির বৈচিত্র্যময় ভূপ্রকৃতির জন্য বিখ্যাত কিশোরগঞ্জ। বর্ষায় ঘুরার জন্য উপযুক্ত একটি জেলা। চারদিকে শুধু থৈ থৈ পানির রাজ্য আর সবুজ শ্যামলিমা। বর্ষার রূপ বৈচিত্র্য আর সুবিমল প্রকৃতি খুব কাছ থেকে দেখতে যাওয়া চাই কিশোরগঞ্জে। আর কিশোরগঞ্জের অন্যতম একটি জায়গা হলো অষ্টগ্রাম হাওর।


চারদিক দিয়েই হাওর বেষ্টিত হওয়ায় কিশোরগঞ্জ হতে অষ্টগ্রাম উপজেলা প্রায় বিচ্ছিন্নই। কিশোরগঞ্জ হতে দক্ষিণ-পূর্ব দিকে এর অবস্থান। জেলা সদর হতে অষ্টগ্রামের দূরত্ব প্রায় ৬০ কি: মি:। অষ্টগ্রাম উপজেলার উত্তরে কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠামইন ও ইটনা, দক্ষিণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাছির নগর, পূর্বে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাছিরনগর উপজেলা ও হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলা, পশ্চিমে কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর ও নিকলি উপজেলা অবস্থিত। বর্ষাকালে থৈ থৈ পানির বুকে এই গ্রামগুলোকে ছোট ছোট দ্বীপ মনে হয়। বর্ষাকালেই এর সৌন্দর্য মূলত ফুটে উঠে। চারদিকে অবারিত পানির রাজ্যে প্রায় তিনঘণ্টার পথ ফেরিয়ে যেতে হয় অষ্টগ্রামে।

বর্ষাকাল কে ঘিরে এই উপজেলায় পারিবারিক ও সামাজিক নানা উৎসবের আমেজ ছড়িয়ে পড়ে কারণ তখন যোগাযোগটা খুব সহজ হয় অন্যান্য জায়গার সাথে। দিগন্ত বিস্তৃত জলরাশি, জেলে জীবনের বহমানতা আর ছোট ছোট নৌকায় মানুষের আসা যাওয়া দেখতে দেখতে প্রকৃতির সাথে মায়াবী এক বাঁধনে আঁটকে পড়ে যাবেন সহজেই। জ্যোৎস্না রাতে চাইলেই ক্যাম্প করে থাকতে পারেন গ্রামের প্রান্তে কোন সুবিধা মতো জায়গায়। তখন এর সৌন্দর্য ধরা দেবে অন্য রকম ভাবে। এছাড়া চাইলে নৌকা ভাড়া করেও রাত কাটাতে পারেন হাওরের বুকে। ধুরে ভেসে থাকা গ্রাম হতে হঠাৎ হঠাৎ দেখা দেবে আলোর ছটা। খুব সকালে হাওরের বুক চিরে জেগে উঠা রক্তলাল সূর্যের ঝিকিমিকি রশ্মি জলের বুকে প্রাণকে আরো চঞ্চল করে তোলে। চাইলে শীতকালেও এখানে এসে ঘুরে যেতে পারেন। তখন দেখা যাবে একেবারে ভিন্ন চিত্র।


এছাড়া অষ্টগ্রাম এসে দেখতে পাবেন ৪০০ বছরের ঐতিহ্য ও পুরাকীর্তি কুতুব শাহ মসজিদ। সুলতানি ও মোঘল স্থাপত্য শৈলীর নিদর্শন পাওয়া যায় এই মসজিদে। পাঁচ গম্বুজ বিশিষ্ট এই মসজিদের নামকরণ করা হয় দরবেশ কুতুব শাহ্‌ এর নাম অনুসারে। মসজিদের পাশেই অবস্থিত দরবেশ কুতুব শাহ্‌ এর মাজার।
এছাড়া বর্ষায় কিশোরগঞ্জের নিকলি তে প্রতি বছর নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। তখন পুরো অঞ্চলেই উৎসবের আমেজ ছড়িয়ে পড়ে। খোঁজ খবর নিয়ে গেলে আপনিও এই উৎসব দেখে আসতে পারেন।

কিভাবে যাবেনঃ

কিশোরগঞ্জে হাওড় দেখতে যাওয়ার একাধিক উপায় আছে। এখানে নিকলী, মিঠামইন, ইটনা তে আপনি হাওড়ের বিশালতা দেখতে পাবেন। তবে অষ্টগ্রামের হাওড় দেখতে যেতে চাইলে আপনাকে নিম্নে প্রদত্ত নির্দেশনা মানতে হবে। হাওড় দেখতে চাইলে আপনাকে নৌকা ভাড়া করতে হবে অথবা লঞ্চে চড়তে হবে। তবে, নৌকা ভাড়া করাই শ্রেয় কারন লঞ্চে সব যাত্রী আপনাকে প্রত্যক্ষ করবে তাই আপনি হাওড়ের সৌন্দর্য পুরোপুরি উপভোগ করতে পারবেন না। কুলিয়ার চর, ভৈরব বাজার এবং বাজিতপুর থেকে আপনি নৌকা ভাড়া করতে পারবেন। তবে, নৌকা ভাড়ার পূর্বে ঠিক করে নিন আপনি কতদুর যেতে চান। কুলিয়ার চরের জিপিএস অবস্থান হল (২৪° ৯’৫.০৩”উ, ৯০°৫৬’২.৬২”পু);

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার ভ্রমণ পিয়াশি বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here