জালিয়াতি ঠেকাতে ভারতের ভিসা পেতে লাগবে ট্রাভেল কার্ড

1
4703
travel card to prevent fraud

রাজশাহী অঞ্চলের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন রীভা গাঙ্গুলি দাশ,( travel card to prevent fraud ), ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমভারতের ভিসা পেতে হলে বিভিন্ন ব্যাংক থেকে কিনতে হয় ১৫০ ডলার। ভিসার আবেদনপত্রের সঙ্গে ডলার কেনার সেই ডকুমেন্টস জমা দিতে হয়। কিন্তু এই কাগজেও হয় জালিয়াতি। ভিসা প্রক্রিয়ায় এই জালিয়াতি ঠেকাতে এবার ট্রাভেল কার্ডের প্রচলন শুরু করতে যাচ্ছে ভারতীয় হাইকমিশন।

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে এটি চালু হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ।

সোমবার (২২ জুলাই) সন্ধ্যায় রাজশাহী অঞ্চলের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ তথ্য জানান।

মতবিনিমিয় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় রীভা বলেন, ‘আমরা লক্ষ্য করছি, ইদানিং ভিসার আবেদনপত্রের সঙ্গে ডলার এনডোর্সমেন্টের কাগজে অনেক জাল সই থাকছে। তাই ভিসা পেতে আগ্রহীদের ট্রাভেল কার্ডের দিকে যেতেই হচ্ছে। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে এটি শুরু হয়ে যাবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজকাল সব কিছুই অনলাইনে হচ্ছে। আমাদেরও টেকনোলজির দিকে যেতে হচ্ছে। আর ট্রাভেল কার্ড খুব সহজ। এটা ডিজিটাল। এতে কোনো জালিয়াতি হবে না।’

ভারতীয় হাইকমিশনার বলেন, ‘২০১৮ সালে ১৪ লাখ ৮০ হাজার মানুষকে ভারতের ভিসা দেওয়া হয়েছে। ভিসা পাওয়া শক্ত হলে এতো মানুষ ভিসা পেত না। ট্যুরিস্ট ভিসা সবচেয়ে সহজে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে। যথাযথ কাগজপত্র জমা দিলে অন্য ভিসাগুলোও খুব সহজে মানুষ পাবে।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনের সেকেন্ড সেক্রেটারি ভিসাল জয়তী দাস, রাজশাহীস্থ ভারতীয় সহকারী কমিশনার সঞ্জিব কুমার ভাটি, রাজশাহী উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি রোজিটি নাজনীন ও নাটোর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি আবদুল মালেক।( travel card to prevent fraud )

রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মো. মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্ব অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রেশম শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি মো. লিয়াকত আলীসহ রাজশাহী ও এর আশপাশের জেলাগুলোর শতাধিক ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

এর আগে সোমবার দুপুরে ভারতীয় হাইকমিশনার নাটোর হয়ে রাজশাহী সফর শুরু করেন। প্রথমে তিনি রাজশাহীর সারদায় পুলিশ একাডেমিতে ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী ভবন পরিদর্শন করেন। পরে তিনি পুঠিয়ার ঐতিহাসিক মন্দির ও স্থাপনা পরিদর্শন শেষে পূজা করেন। এরপর রীভা গাঙ্গুলি রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সঙ্গে মতবিনিময়ে মিলিত হন।

তথ্য সংগ্রহ হয়েছে বার্তা নিউজ ২৪ ডট কম থেকে

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার ভ্রমণ পিয়াশি বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here