বাড়বকুন্ড ট্রেইল | সীতাকুন্ড

0
552
Barabkunda Trail

সংক্ষিপ্ত বিবরণঃ

বাড়বকুন্ড তুলনামূলক অপরিচিত ট্রেইল( Barabkunda Trail )।বাংলাদেশের একমাত্র হট ওয়াটার স্প্রিংস এখানেই দেখতে পাবেন।অপরিচিত হওয়ায় যাওয়ার আগে অনেক ঘাটাঘাটি করেও তেমন কোন ইনফো খুঁজে পেলাম না অথচ ঘুড়ার জন্য বেশ ভাল একটি প্লেস।

বাড়বকুন্ডের সবচেয়ে আকর্ষনীয় পার্ট হচ্ছে অগ্নিকুণ্ড মন্দির (পানির উপর আগুন জ্বলছে, মিথেন গ্যাসের জন্য দেখতে খুব ইন্টারেস্টিং লাগবে), অনেক অনেক মিথ প্রচলিত আছে এই মন্দির নিয়ে। এছাড়াও এখানে শতশত বর্ষ পুরানো বেশ কিছু মন্দির আছে (কালভৈরবী যার মধ্যে অন্যতম)। পাহড়ি রাস্তার ২ পাশে পেয়ারা+আম বাগান এর মধ্যে দিয়ে হাটতে হাটতে কখন যে পৌছে যাবেন টের ই পাবেন না। অপেক্ষাকৃত সহজ+সুন্দর একটি ট্রেইল( পুরো কাভার করে আবার ফিরে আসতে সময় লাগবে কম-বেশি ৩-৪ ঘন্টা)। এই ট্রেইলে ২ টি খুম এবং ১ টি ঝর্নাও আছে। মন্দির থেকে নেমে হাতের বাম দিকে একটি খুম পাবেন,ঠিক তার পাশ ঘেষেই যে ঝিরিপথ আছে তা ধরে ২০-২৫ মিনিট হাটলেই প্রথম ঝর্না। ঝিরিপথ ধরে এগোলেই বাকি ঝর্না গুলো পেয়ে যাবেন।বিশেষ করে শেষ ঝর্নাটার কথা বলতেই হয়, সেটা পর্যন্ত যেতে ধৈর্য থাকার অতি প্রয়োজন।সেটি দেখার পর আপনার দেহের সারাদিনের ক্লান্তি কেটে যাবে আশা করি।

কিভাবে যাবেনঃ

ঢাকা থেকে নামবেন বাড়বকুন্ড বাজারে। সীতাকুন্ডের পরই বাড়বকুন্ড বাজার। বাড়ব কুন্ড বাজার থেকে ৪০ -৪৫ মিনিটের হাঁটা পথ প্রাচীন কালভৈরবী মন্দিরে। ওখান থেকে হেঁটে ঝিরিপথ ধরবেন।

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার ভ্রমণ পিয়াশি বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here