নন্দন পার্ক | ঢাকা

0
491
nandan park dhaka

সংক্ষিপ্ত বিবরণঃ

সাভারের নবীনগর-চন্দ্রা হাইওয়ের বাড়ইপাড়া এলাকায় প্রায় ৩৩ একর জমির উপর ২০০৩ সালের অক্টোবর মাস থেকে নন্দন থিম পার্কের( nandan park dhaka ) যাত্রা শুরু। ঢাকার মতিঝিল থেকে এখানে বাসযোগে পৌঁছতে সময় লাগে প্রায় দুই ঘন্টা। হানিফ, সুপার ও আজমেরী বাস সার্ভিস যোগে নন্দনে যাতায়াত করা যায়। এছাড়া ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়েও এখানে আসা যায়। থিম পার্কের সামনে প্রায় ১,৫০০ গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা রয়েছে। নন্দন থিম পার্কটির বিশেষত্ব হচ্ছে সবুজের সমারোহ। হাটতে হাটতে ক্লান্ত হলে/জিরিয়ে নিতে বসতে পারেন ঘাসের সবুজ গালিচাতে। আন্তর্জাতিক মানের রাইড, মানসম্পন্ন খাবারের দোকান ও প্রাকৃতিক পরিবেশ সত্যিই ভ্রমনকারীদের বারংবার নন্দন পার্কে আসার ইচ্ছা জাগায়। সাথে রয়েছে সুনিশ্চিত নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও হকার মুক্ত পরিবেশ।

বিভিন্ন রাইডঃ

জিপ রাইড : ৪৫ ফুট উচ্চতাবিশিষ্ট টাওয়ার থেকে ৪৫ ডিগ্রি স্লোপে ১৪ মি.মি. স্টিল ওয়ারের সাহায্যে স্যান্ডিং পয়েন্টে বা ভূমিতে অবতরণ করতে হয়। এটি একটি অত্যন্ত আকর্ষণীয় রোমাঞ্চকর রাইড।

রক ক্লাইম্বিং: এই রাইডটি ৪৫ ফুট উচ্চতাবিশিষ্ট ৯০ ডিগ্রি খাড়া একটি টাওয়ারে পর্বতাকৃতি করে তৈরি করা হয়েছে। ওই পর্বতের গায়ে লাগানো কৃত্রিম পাথর বেয়ে পর্বতারোহণ করতে হবে এই দুঃসাহসিক খেলায়। আরোহণকারীর নিম্ন পতন রোধের জন্য রয়েছে বিশেষ ধরনের নিরাপত্তাব্যবস্থা।

র্যাপলিং : বর্তমান প্রযুক্তির যুগে র্যাপলিং একটি অত্যন্ত সহজ ও আনন্দদায়ক রাইড। এটাও ৪৫ ফুট উঁচু টাওয়ারের ওপর থেকে টাওয়ারের খাড়া গা বেয়ে স্ট্যাটিক রোপের সাহায্যে কৃত্রিম পাথরে র্যাপলার, পা দু’টি একসঙ্গে কাঁধ বরাবর বাঁকা করবে এবং হাঁট ৯০ ডিগ্রি সোজা করে টাওয়ারের গায়ে জোরে ধাক্কা মেরে পেছনে যাবে এবং একই সময় হাতের মধ্যে স্ট্যাটিক রোপ রিলিজ করে নিচে অবতরণ করতে হবে এই দুঃসাহসিক খেলায়।

চ্যালেঞ্জ কোর্স : এটা অ্যাডভেঞ্চার জোনের আরো একটি দুঃসাহসিক ও রোমাঞ্চকর রাইড। এই রাইডটি বার্মা ব্রিজ, প্লাংক পেন্ডুলাম, প্যারালাল রোপ ও হর্স পেন্ডুলামের সমন্বয়ে গঠিত। প্রতিটি রাইডের উচ্চতা ১৮ ফুট এবং দৈর্ঘ্য ২৪ ফুট।

অবস্ট্যাকল কোর্স : এই রাইডটি সম্পূর্ণভাবে ৫ থেকে ১০ বছরের শিশুদের জন্য। এই রাইডটি উপভোগ করার সময় রাইডারের নিরাপত্তার জন্য অভিভাবক সঙ্গে থাকবেন এবং নিরাপত্তা বিধান করবেন। মাত্র ৬০ টাকার টিকিটের বিনিময়ে এই রাইডগুলো উপভোগ করা যাবে। এ রাইডগুলোর ব্যবহারের নিয়মনীতি ও নিরাপত্তানীতি কঠোরভাবে মেনে চললে দুর্ঘটনার কোনো অবকাশই নেই।

অ্যাডভেঞ্চার রাইড, ওয়াটার ওয়ার্ল্ড, ওয়াটার কোস্টার, ক্যাবল কার, আইসল্যান্ড, টাইটানিকসহ এ পার্কে রয়েছে বিশ্বমানের ২৮টি রাইড।

ফাইভ-ডি সিনেমা থিয়েটার : নন্দন পার্ক বাংলাদেশে বিনোদনের ইতিহাসে সংযোজন করেছে এক নতুন মাত্রা। বাংলাদেশে এই প্রথম নন্দন পার্কে স্থাপিত হয়েছে ‘ফাইভ-ডি সিনেমা থিয়েটার’ প্রযুক্তিগত উৎকর্ষের এক নবতর সংযোজন, যা আপনাকে দেবে এক অসাধারণ মজার অভিজ্ঞতা।

‘ফাইভ-ডি সিনেমা থিয়েটার’ এ আপনার বসার চেয়ারটি বিশেষভাবে সংযোজিত, যা নির্দিষ্ট ধারায় ছবির কাহিনীর সাথে তাল মিলিয়ে নড়াচড়া করবে। অর্থাৎ এখানে আপনি সিনেমার গল্পের সাথে সক্রিয় চরিত্র হিসেবে অংশগ্রহণ করবেন।

নন্দন পার্ক ওয়াটার ওয়ার্ল্ড: নন্দন ড্রাই পাকের্র সাথে ওয়াটার ওয়ার্ল্ড নিয়ে এসেছে পানির রোমাঞ্চকর সব খেলা, যা আনন্দের এবং গরমে প্রাণ জুড়ানো। এখানে সব মজা করতে পারেন পরিবারের সবাই।

নন্দন ওয়াটার ওয়ার্ল্ডের রাইডের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে
ওয়েভ পুল : সমুদ্রের স্বাদ নিয়ে এলো ওয়েভ পুল। সমুদ্রের মজা পাওয়ার জায়গা সমুদ্র ছাড়া এই একটাই। নানান ঢেউয়ের মেলা এখানে। হালকা ঢেউ, ভারী ঢেউ , উত্তাল ঝোড়ো ঢেউ। ঢেউয়ের সাথে নাচবে মন, সাথে শরীর যাবে ভেসে।

স্যুট ও ফ্যামিলি কার্ভ টিউব স্লাইড : প্রায় তিন তলা সমান উচ্চতা থেকে দু’টি ভিন্ন ধরনের টিউবের ভেতর দিয়ে সোজা পানিতে। প্যাঁচানো পথে রাবারের ভেলায় চেপে পানির সাথে স্লাইড করে নামা। এ রাইডে আছে জোশ, আছে উত্তেজনা।

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার ভ্রমণ পিয়াশি বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।