জাকারিয়া সিটি | সিলেট

0
380

সংক্ষিপ্ত বিবরণঃ

প্রাকৃতিক সৌর্ন্দযের লীলাভূমি পাহাড় টিলার নৈসর্গিক সৌর্ন্দযকে অটুট রেখে গড়ে তোলা হয়েছে এক্সেলশিয়র( jakaria city sylhet )। এটি আর্ন্তজাতিক মানের একটি পর্যটন ও বিনোদন কেন্দ্র। প্রায় ১৭ একর পাহাড়ী জমিতে গড়ে উঠা এই রিসোর্টের উদ্বোধন হয় ২০০৪ সালের ২৯ এপ্রিল। এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বিশিষ্ট শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ এম. জাকারিয়া হোসেইন।

বেসরকারী উদ্যোগে নির্মিত দেশের প্রথম এই পর্যটন কেন্দ্র যেতে হলে সিলেট -তামাবিল সড়ক দিয়ে শাহপরান পর্যন্ত এগোতে হবে। এই কেন্দ্রটি দেখলেই মন জুড়িয়ে যায়। টিলার উপরে রয়েছে লাল সিরামিক ইটের তৈরি প্রাসাদ। যা মধুমালতি ও ক্যামেলিয়া লজ নামে পরিচিত। প্রবেশ পথ দিয়ে প্রায় ৩০০ ফুট উচুতে উঠার সময় হাতের বাম দিকে থাকা কৃত্রিম হৃদ নজের পড়ে। এছাড়া ৫০০ প্রজাতির ১ লক্ষেরও বেশি গাছগাছালি তো আছেই। উচু টিলায় উঠলে হাতের কাছেই পাবেন স্পোর্টস কমপ্লেক্স, টেনিস কোর্ট, লন টেনিস কোর্ট, জিমনেশিয়াম ও অডিটোরিয়াম। রয়েছে দ্বিতল বিশিষ্ট মোটেল। মোটেলের দ্বিতীয় তলা থেকে প্রাকৃতিক অপরূপ সৌর্ন্দয্য দেখা যায়। মোটেলের পিছনের অংশে রয়েছে পিকনিক স্পট। এই রিসোর্টের আকর্ষণ হলো এর তিন দিক তাকালে তিনটি গ্যাসক্ষেত্রের অগ্নিশিখা দেখা যায়। এগুলো হচ্ছে হরিপুর, কৈলাশ টিলা এবং আলুটিলা গ্যাসক্ষেত্র

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার ভ্রমণ পিয়াশি বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।