নাজিমগড় গার্ডেন রিসোর্ট | সিলেট

0
1120

সংক্ষিপ্ত বিবরণঃ

নাজিমগড় গার্ডেন রিসোর্ট( najimgor garden resort ) সিলেট সদর উপজেলার খাদিমনগরে অবস্থিত। প্রায় ছয় একর জমির উপর অবস্থিত নাজিমগড় গার্ডেন রিসোর্টকে পাহাড়ের কোলে অবস্থিত একটি ছবির মত সুন্দর দ্বীপ হিসেবে বললে মোটেও ভুল হবে না। এখানকার ভিলা এবং বাংলোগুলোতে রয়েছে পৃথক বারান্দাসহ দুজনের থাকার মত বিশ্বমানের পঞ্চাশটি কক্ষ। এখানকার ‘হিলটপ স্পা কমপ্লেক্সে’ বড়দের সুইমিংপুল, বাচ্চাদের সুইমিংপুলের পাশাপাশি রয়েছে সোয়ানা এবং মাসাজের সুব্যবস্থা। এখানকার ক্যাফে এবং রেস্টুরেন্টগুলোতে অভিজ্ঞ বাবুর্চিদের দিয়ে রান্না করানো হয়। এছাড়াও মিটিং ও কনফারেন্সের জন্য এখানে রয়েছে পৃথক কক্ষ।

কিভাবে যাবেনঃ
ঢাকার ফকিরাপুল, সায়দাবাদ, গাবতলি ও মহাখালী বাস স্টেশন থেকে সিলেটের উদ্দেশ্যে বাস ছেড়ে যায়। এ পথে গ্রিন লাইন পরিবহন, এনা পরিবহন, সৌদিয়া এস আলম পরিবহন, শ্যামলী পরিবহন, এনা পরিবহন, হানিফ এন্টারপ্রাইজ, ইউনিক সার্ভিস এর এসি ও নন-এসি বাস চলাচল করে। ভাড়া পড়বে ৪০০ থেকে ১১০০ টাকা।

এছাড়া কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকেও আন্তঃনগর ট্রেন পারাবত এক্সপ্রেস, জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস ও উপবন এক্সপ্রেস এ চড়ে যেতে পারেন সিলেটে।
এরপর সিলেট শহর থেকে আপনি সিএনজি, অটোরিকশা, বাস অথবা প্রাইভেট কারে যেতে পারবেন নাজিমগড় রিসোর্ট।

সিলেট থেকে কিভাবে যাবেনঃ

সিলেট শহরের সোবহনীঘাট পয়েন্ট অথবা ওসমানী শিশু পার্ক ও দক্ষিণ সুরমা কেন্দ্রীয় বাস-টার্মিনাল থেকে সিলেট তামাবিল জাফলংয়ের বাস এবং লেগুনা গাড়িতে এসে সারীঘাট নামতে হবে। গাড়ি ভাড়া বাবদ ৪০ টাকা লাগবে। লালাখাল চা-বাগান পর্যমত্ম যেতে দুটি রাসত্মা ব্যবহার করতে পারেন। সিলেট তামাবিল সড়ক হয়ে সারীঘাটে নেমে সারী নদী দিয়ে নৌকা অথবা ফেরীঘাট হয়ে সড়ক পথে যাওয়া যাবে। সারী নদী দিয়ে বেশীর ভাগ পর্যটক নাজিমগড় রির্সোট-এর স্পীডবোট নিয়ে যান। আবার অনেকই নৌকা দিয়ে লালাখাল ভ্রমনে যান।

নৌকায় ৫শ থেকে ৬শত টাকা আর স্পীডবোট দিয়ে ২ হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা ভাড়া লাগে। সারীঘাট উত্তর পার ডৌডিক রাসত্মা দিয়ে ছোট ছোট ব্যাটারী চালিত গাড়ি চলাচল করে। সারীঘাট থেকে লালাখাল ৫ কিলোমিটার দূরত্ব ভাড়া ১৫ টাকা। নদী পথে লালখাল ভ্রমন করার সময় সারী নদীর নীল জল ও নদীর দু-পাশে গোধুলী লগ্নে গ্রাম্য মেয়েরা কলসী দিয়ে পানি নেওয়ার দৃশ্য চোখে পড়ার মত। দিনের বেলায় শত শত নৌকা শ্রমিকদের বালু উত্তোলন আর নদীর আকাঁ বাকাঁ পথ যে কোন বয়সের পর্যটকদের মন কাড়বে। বাগান এলাকায় সাওতাল নারী-পুরম্নষ চা শ্রমিকরা আপন মনে চা পাতা তোলার দৃশ্য দুর-দুরামত্ম থেকে আগত পর্যটকদের আর্কষণ অনেকটা বাড়িয়ে দেয়।

যা যা দেখবেনঃ
এখানে ঘুরে বেড়ানোর জন্য এবং দেখার জন্য রয়েছে একাধিক স্থান। নাজিমগড় গার্ডেন রিসোর্ট থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে সারি নদীতে রয়েছে রিসোর্টের নিজস্ব বোট স্টেশন। রিসোর্টের তত্ত্বাবধানে পর্যটকদের গ্রীষ্মকালে স্পীডবোটে এবং পানির স্তর কমে গেলে ছোট নৌকায় লালাখালে বেড়াতে নিয়ে যাওয়া হয়। এছাড়া এখান থেকে আপনি লালাখাল, জাফলং, পান্থামুই গ্রাম, মাধবকুণ্ডের চা বাগান ও রেইন ফরেস্টসহ বিভিন্ন স্থানে বেড়াতে যেতে পারেন।

কি খাবেনঃ

খাওয়ার জন্য এই রিসোর্টে রয়েছে বেশকিছু রেস্টুরেন্ট যেমনঃ গার্ডেন বিসট্র, হিলটপ, মাচাং, মেঘালয় লাউঞ্জ এবং পুল ক্যাফে।

কোথায় থাকবেনঃ
দুইজন এক রুমে ১৪,৫০০ টাকা
৪-৬ জনের গ্রুপ (প্রতি ২ জনের জন্য একটি রুম) ১২,০০০ টাকা।
৮-১৬ জনের গ্রুপ (প্রতি ২ জনের জন্য একটি রুম) ১১,৫০০ টাকা।
১৮-৩০ জনের গ্রুপ (প্রতি ২ জনের জন্য একটি রুম) ১১,০০০ টাকা।
বিভিন্ন ধরনের রুমের ভাড়া
প্রিমিয়ার রুম- ৫,৯০০ টাকা
ডিলাক্স রুম- ৬,৯০০ টাকা
এক্সকিউটিভ রুম- ৭,৯০০ টাকা
ডাবল রুম- ১১,৯০০ টাকা
প্রেসিডেন্টিয়াল স্যুইট- ১৪,৯০০ টাকা

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার ভ্রমণ পিয়াশি বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here